প্রয়াত আইনজীবীদের স্মরণে সুপ্রিম কোর্টে দোয়া-মিলাদ মাহফিল

প্রয়াত আইনজীবীদের স্মরণে সুপ্রিম কোর্টে দোয়া-মিলাদ মাহফিল

মহামারি করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও বার্ধক্যজনিত কারণ এবং স্ট্রোকসহ নানা ধরনের অসুস্থতার কারণে মৃত্যুবরণ করা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নাজমুল হকসহ মারা যাওয়া ও অসুস্থ আইনজীবীদের স্মরণে দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রয়াত আইনজীবী নাজমুল হকসহ সুপ্রিম কোর্টের প্রয়াত আইনজীবীদের স্মরণে ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতি এই দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শফিকুর রহমানের উপস্থাপনায় ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি জেসমিন সুলতানার সভাপতিত্বে স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন, মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, ড. বশির আহমদ এবং প্রয়াত নাজমুল হকের মেয়ে তাজমাহী নুজহাত নূর।

এছাড়া বক্তব্য দেন গাজী মোজাম্মদ মহসিন, আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, গোলাম রহমান, ড. নাঈম আহমেদ, জাহাঙ্গীর হোসেন, মো. শাহজাহান, ফজলুর রহমান প্রমুখ।

স্মরণসভায় অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, প্রয়াত নাজমুল বাসা থেকে খাবার নিয়ে এসে আমাদের খাওয়াতেন। নাজমুল এভাবে চলে যাবে এটা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। আল্লাহ ওকে নিয়ে গেছে। আমরা ওর জন্য দোয়া করি। আজকে নাজমুল আমাদের মাঝে নেই। আমরা আল্লাহর কাছে সবার জন্য দোয়া করবো। এই পৃথিবীতে আমরা যদি কোনো ভুল করে থাকি। আল্লাহ যেন আমাদের সবাইকে মাফ করে দেন। আল্লাহ আমাদের যেন হেফাজত করেন। সবাই নাজমুল ও তার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন।

প্রয়াত আইনজীবী নাজমুল হকের সঙ্গে নিজের কাজের অভিজ্ঞতার কথা স্মরণ করে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি কেএম জাহিদ সারোয়ার কাজল বলেন, নাজমুল ভাইয়ের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করার স্মৃতি আমি আজীবন মিস করব। ২৪ বছর আইনজীবী জীবনে তার সঙ্গে কাজ করার বহু স্মৃতি রয়েছে আমার। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন তাকে মাফ করে দেন। তার পরিবার যেন এই শোক বহন করতে পারে এই দোয়া করি।

স্মরণসভায় সভাপতির বক্তব্যে ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি জেসমিন সুলতানা করোনাকালে মারা যাওয়া ১২৫ জন আইনজীবীর কথা উল্লেখ প্রয়াত সব আইনজীবীর রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। একইসঙ্গে এ সময় হাসপাতালে ভর্তি ও অসুস্থ আইনজীবীদের সুস্থতা কামনা করেন।

স্মরণ সভায় জানানো হয়, ২০২০ সালের মার্চ মাসে করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে সুপ্রিম কোর্টের অনেক আইনজীবী, বিচারপতি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ সময়ের মধ্যে ১২৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

পরের সংবাদ

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে অসদাচরণ, পুলিশ সুপারকে হাইকোর্টে তলব

বুধ জানু ২০ , ২০২১
নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে কুষ্টিয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মহসিন হাসানের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগের বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাতকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার (২০ জানুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খিজির হায়াতের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন। আগামী ২৫ জানুয়ারি তানভীর আরাফাতকে […]
হাইকোর্ট ও পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাত